কিভাবে Web Designer বা ডেভেলপার হওয়া যায়!

এখনকার যুগে ওয়েব ডিজাইন সম্পর্কে টুকটাক আইডিয়া আপনার থাকতেই হবে। আর যাঁরা পুরোপুরি Web Designer বা ওয়েবপেজ ডিজাইনার হতে চান তাঁদের তো আটঘাট বেধেই নামতে হবে। কেন হতে হবে ওয়েব ডিজাইনার? যারা ওয়েব ডিজাইন শিখবেন ভাবছেন বা Web Designer আসলে কি, কিভাবে কাজ করে কিংবা কি কি শিখলে আপনি ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন, এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন, আশা করি তারা এই উত্তরগুলো পেয়ে যাবেন এই পোস্টের মাধ্যমে।

ওয়েব ডিজাইন মানে হচ্ছে একটা ওয়েবসাইট দেখতে কেমন হবে বা এর সাধারণ রূপ কেমন হবে তা নির্ধারণ করা। Web Designer হিসেবে আপনার কাজ হবে একটা পূর্ণাঙ্গ ওয়েবসাইটের টেম্পলেট বানানো । যেমন ধরুন এটার লে-আউট কেমন হবে। হেডারে কোথায় মেনু থাকবে, সাইডবার হবে কিনা, ইমেজগুলো কীভাবে প্রদর্শন করবে ইত্যাদি। ভিন্নভাবে বলতে গেলে ওয়েবসাইটের তথ্য কী হবে এবং কোথায় জমা থাকবে এগুলো চিন্তা না করে, তথ্যগুলো কীভাবে দেখানো হবে সেটা নির্ধারণ করাই হচ্ছে Web Designer কাজ। আর এ ডিজাইন নির্ধারণ করতে ব্যবহার করতে হবে কিছু প্রোগ্রামিং, স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ এবং মার্কআপ ল্যাঙ্গুয়েজ।

কেন শিখবেন ওয়েব ডিজাইন?

বর্তমান যুগে অনেকেই ওয়েব ডিজাইন শিখে লাখ লাখ টাকা আয় করছে। এর কারণ হচ্ছে বর্তমান এ পৃথিবীতে সবকিছুর যোগাযোগ, লেনদেন, কেনাবেচা সবকিছুই হচ্ছে ইন্টারনেটের মাধ্যমে। এক হিসাব অনুযায়ী, প্রতি মাসে প্রায় ১ মিলিয়ন ওয়েবসাইট অনলাইনে যুক্ত হচ্ছে। আর একজন আরেকজনের পণ্য কিনছে একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা বলছে, একজন তার কোম্পানির পরিচিতির জন্য ওয়েবসাইট দরকার। আর এ সবকিছুই যখন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে হচ্ছে তাই সবাই চায় যে তার একটা ওয়েবসাইট থাকুক। আর যখনই সে ওয়েবসাইট বানাতে চায় তখনই একজন Web Designer দরকার হয়। যে তার ওয়েবসাইটটি তৈরি করে দেবে। আর এ কারণেই মূলত Web Designer এত দাম।

ওয়েব ডিজাইন শিখতে হলে

Web Designer হতে হলে কি কম্পিউটার সায়েন্স থেকে পাস হতে হবে? আমাদের সমাজের মধ্যে অনেক ভুল ধারণার মধ্যে এটিও একটি ভুল ধারণা। প্রকৃতপক্ষে বাহ্যিকভাবে দেখলে কম্পিউটার সায়েন্স থেকে পাস করা ছাত্রদেরই বেশি সফল হওয়ার কথা ছিল; কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। বেশিরভাগ ওয়েডেভেলপমেন্ট সম্পর্কিত অফিসগুলোতে গেলেই যে তথ্য পাওয়া যায়, সেখানে দেখা যায় ৯০ ভাগ ওয়েবডেভেলপারের এডুকেশন ব্যাকগ্রাউন্ড ভিন্ন।ওয়েব

ডিজাইন কি?
ওয়েব ডিজাইন, খুব সহজ করে বলতে গেলে বলতে হয়, ওয়েবসাইট তৈরির প্রক্রিয়া। সোজা কথায় ইন্টারনেটে আমরা একটা ওয়েবসাইটে যা দেখি তাই ওয়েব ডিজাইন। একটা ওয়েবসাইট দেখতে কেমন হবে, কি রং ব্যবহার করলে ইউজারের কাছে ভালো লাগবে কিংবা কোন জিনিসটা কোন জায়গায় রাখলে ভালো দেখাবে, এসব এক সাথে করতে পারলে আপনিও হতে পারবেন একজন ওয়েব ডিজাইনার। কিন্তু এসব করবেন কিভাবে? এসব করতে হলে আপনাকে যা যা শিখতে হবে, একটু নিচেই পেয়ে যাবেন সেগুলোর বর্ণনা। তার আগে Web Designe সম্পর্কে আরো একটু ধারণা নেওয়া যাক। ওয়েব ডিজাইনের কয়েকটা উপাদান রয়েছে। যেমন-

লেআউটঃ একটা ওয়েবসাইট কিভাবে দেখাতে চান, কোন জিনিসটা কোন জায়গায় থাকবে যেমন-মেনুবার, টেক্ট কিংবা অন্য কোন উপাদান যা আপনার ওয়েবসাইটে আছে, এটা ঠিক করেই লেআউট তৈরী করা হয়। এটা আপনার কাস্টমার বা ক্লায়েন্ট বলেও দিতে পারে কিংবা আপনি নিজের মতো করতে পারেন।

রংঃ একটা ওয়েব সাইটের সৌন্দয্য নির্ভর করে রং নির্বাচন করার উপর। রং কাস্টমারের পছন্দমতো নেওয়া উচিত। তবে রং নির্বাচন নির্ভর করে ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য আর কিসের ওয়েবসাইট সেটার উপর।

গ্রাফিক্সঃ গ্রাফিক্স বলতে লোগো, ছবি, আইকন এ-সব, যা একটা ওয়েবসাইটের সৌন্দয্য বৃদ্ধি করে । সঠিক জায়গায় সঠিক জিনিস বসাতে পারলেই হবে।

ফন্টঃ আপনি যেই ওয়েব ডিজাইন করুন না কেন, ওই ওয়েবে যে টেক্সট্ ব্যবহার করবেন তার ফ্রন্ট যেনো ভালো হয়। কেননা, বিভিন্ন ধরণের ফন্ট বিভিন্ন ওয়েবসাইটকে সুন্দর করে। ফ্রন্ট বলতে যে লেখাগুলো দেখাবেন সেগুলোর স্টাইল।

কন্টেন্টঃ কন্টেন্ট বলতে ওয়েবসাইটের ম্যাসেজ। কি বলতে চান সেটা ভালোভাবে ফুটিয়ে তোলা। ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট যেনো দরকারি আর গুরুত্বপূর্ণ হয়।

উপরের এই জিনিসগুলো মাথায় রাখলে একটা ভালো ওয়েব ডিজাইন সহজেই করা সম্ভব। এর বাইরেও কিছু জিনিস আমাদের জানা উচিত সেগুলো হচ্ছে-

নেভিগেশনঃ নেভিগেশন বলতে আমরা ওয়েবসাইটে যে মেনুবার দেখি সেটা। আপনার ওয়েবসাইটের সবগুলো বিষয় যেনো সহজেই ইউজার খুঁজে পায় কিংবা সার্চ করতে পারে, এই জন্য নেভিগেশন ব্যবহার করা।

মাল্টিমিডিয়াঃ মাল্টিমিডিয়া বলতে ভিডিও কিংবা অ্যানিমেশন ব্যবহার করা, যেন ইউজার আপনার বক্তব্য বা ম্যাসেজ সহজেই বুঝতে পারে।

আর একটা জিনিস না জানলেই নয়, খেয়াল রাখতে হবে ওয়েব ডিজাইন এমনভাবে করতে হবে যেনো সব ব্রাউজারে সাপোর্ট করে। আশা করবো ওয়েব ডিজাইন কি, কিভাবে একটা ভালো ওয়েব ডিজাইন করা সম্ভব বুঝতে পেরেছেন।

সফটওয়্যার: নোট প্যাড, ওয়েবস্ট্রম এখন ভালো সফটওয়্যার।

কি কি শিখবেন?
এবার তাহলে জানা যাক কি কি শিখলে আপনি ওয়েব ডিজাইন করতে পারবেন বা ডিজাইনার হতে পারবেন। এই প্রশ্ন অনেকের মনেই আসে বিশেষ করে যারা একদমই নতুন। নানারকম কনফিউশন কাজ করে তাদের মধ্যে। কি শিখবো আগে, কি কি শিখলে ওয়েব ডিজাইন করতে পারবো ,আরো অনেক কিছু। ওয়েব ডিজাইন করতে গেলে আপনাকে যা আগে জানতেই হবে সেগুলো হচ্ছে-

এইচটিএমএল (HTML)
সিএসএস (CSS)
জাভাস্ক্রিপ্ট (JAVASCRIPT)

এইচটিএমএল (HTML)
এইচটিএমএল হল হাইপারটেক্সট্ মার্কআপ ল্যাঙ্গুয়েজ। এটা কিন্তু কোনো প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ না। এর সাহায্যে কতোগুলো ইলেকট্রনিক ডকুমেন্ট তৈরী করা হয়, যাকে বলা হয় ওয়েব পেজ আর এই ওয়েব পেজ আমরা ওয়েবসাইটে দেখি। মনে করেন আপনি একটা ঘর বানাবেন, এর জন্যে যা যা দরকার যেমন-ইট, বালু, সিমেন্ট ইত্যাদি। এসব দিয়ে কিন্তু ঘর তুলে ফেলতে পারবেন। ঠিক এরকমই এইচটিএমএল দিয়ে ওয়েব পেজের কাঠামো তৈরী করা হয় এবং কতোগুলো ট্যাগ ব্যবহার করে এই কাজ করতে হয়। যেমন- কোনো কিছু লিখলে <p></p> ব্যবহার করতে হবে।

সিএসএস (CSS)
সিএসএস হল ক্যাসকেডিয়ান স্টাইল সীট যার মাধ্যেমে আপনার ওয়েব পেজ দেখতে সুন্দর করতে পারবেন। ওই যে ঘর তুললেন মনে আছে? ঘর তোলার পর আপনি দেখতে সুন্দর করার জন্য রং করতে পারেন, দরজা-জানালা ভালোভাবে ঠিক জায়গায় লাগাতে পারেন। আর এই কাজটাই করে সিএসএস আপনার ওয়েব পেজের জন্যে। তাহলে ঘর তুললেই যে হয়ে গেলো এরকম না, ঠিক তেমনি এইচটিএমএল দিয়ে ওয়েব পেজ হবে কিন্তু সুন্দর করার জন্যে অবশ্যই সিএসএস ব্যবহার করতে হবে।

জাভাস্ক্রিপ্ট(JAVASCRIPT)
জাভাস্ক্রিপ্ট হলো স্ক্রিপ্টিং প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ যার মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েব পেজের কঠিন কিছু কাজ খুব সহজেই করতে পারবেন। ওই যে আপনি ঘর তুললেন, রং করলেন সবই হলো তাহলে আর বাকি কি? আপনি আপনার ঘরে বিদ্যুৎ নিবেন না? সুইচ দিলেই ফ্যান ঘুরা শুরু করে। এই যে কিছু ফাংশনাল কাজ এই কাজগুলোই করে জাভাস্ক্রিপ্ট।

আপনি যদি ভাবেন আপনি ওয়েব ডিজাইন শিখবেন বা শিখছেন কিন্তু কি শিখবেন বুঝতে পারেছেন না, উপরের এই ৩ টা জিনিস শিখে ফেলেন, আপনাকে ওয়েব ডিজাইনার হতে কেউ আটকাতে পারেব না। বর্তমান টেকনোলজির যুগে সব কিছু্রই এখন ওয়েবসাইট আছে এবং সব কাজ ওয়েবে করা হচ্ছে। ওয়েব ডিজাইন হতে পারে খুব ভালো একটা কাজের জায়গা যদি আপনি ভালো ডিজাইনার হতে পারেন। কেননা একটু খোঁজ নিলেই বুঝতে পারবেন ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা বর্তমান অনেক অনেক বেশি এবং দিন দিন আরো বাড়ছে।

কেন শিখবেন
আপনি যদি মনে করেন আপনি অনলাইন এ ক্যারিয়ার গড়বেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই HTML and CSS সম্পর্কে ধারনা রাখতে হবে। আপনি যে ক্ষেত্রেই কাজ করেন না কেনো, আপনার কোন না কোন ভাবে HTML and CSS কাজে লাগবেই। আর যদি আপনি ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট এ ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে তো আপনাকে অবশ্যই শিখতে হবে। ওয়েব ডিজাইনিং হলো ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট শিখার প্রথম ধাপ।

কাদের জন্য উপযুক্ত
যারা ওয়েবসাইট ব্রাউজ করতে ভালোবাসেন ও আপনার মনে আগ্রহ হয় যে, কিভাবে ওয়েবসাইট টি তৈরি হয়েছে তা জানতে হবে। তাহলে আপনি এই সেক্টরে ভালো করতে পারবেন এতে কোন সন্দেহ নাই। আমি বরাবরই আগ্রহের কথা বেশ গুরুত্বের সাথে বলে থাকি।

মার্কেটের চাহিদা কেমন
মার্কেটে ওয়েব ডিজাইনিং এর প্রচুর পরিমান চাহিদা রয়েছে। তবে আপনি যদি শুধুমাত্র ওয়েব ডিজাইন শিখেন তাহলে আপনার কাজ না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। আপনাকে ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করা শিখতে হবে। মানে হলো ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট শিখতে হবে। যদি তা বেশ কঠিন হয়ে যায় তবে আপনি সাধারন ভাবে ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে পারেন। ওয়ার্ডপ্রেস হলো একটা ওয়েব কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিষ্টেম। যা দ্বারা আপনি সহজেই ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

আয় সম্ভাবনা কেমন
এটা নির্ভর করে আপনার অভিজ্ঞতার উপর। আমার মতে শুধুমাত্র ওয়েব ডিজাইনিং শিখে তেমন আয় করা যায় না। গেলেও তা বেশ ঝামেলাযুক্ত। আমি পরামর্শ দিবো অবশ্যই ওয়েব ডিজাইনিং এর সাথে সাথে ওয়ার্ডপ্রেস শিখার জন্য। তাহলে অনাআসেই মাসে ৫০০ ডলার আয় করা সম্ভব।

ওয়েব ডিজাইন শিখতে হলে আপনার কি যোগ্যতা লাগবে ও কত সময় লাগবে
তেমন কোন যোগ্যতাই লাগবে না। আপনার ইচ্ছাশক্তিটাই যথেষ্ট। যে কেউ চাইলে ওয়েব ডিজাইন শিখতে পারে। আর ওয়েব ডিজাইন শিখতে গেলে একদম নতুন হিসাবে ৩ মাস লাগতে পারে। তবে কিছুটা বেশি সময় দিলে ২ মাসেই HTML and CSS ভালোভাবে আয়ত্ব করা সম্ভব। তবে মনে রাখবেন, ওয়েব ডিজাইনিং এর সাথে ওয়েব ডেভেলাপমেন্টের নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। ওয়েব ডিজাইনিং শিখতে কম সময় লাগলেও ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট শিখতে ২ বছর পর্যন্ত লেগে যেতে পারে।

কোন কোন ওয়েবসাইট আপনাকে ফলো করতে হবে
http://www.w3schools.com
এইটাকে ওয়েব ডিজাইনিং শিখার বাইবেল বলা হয়ে তাকে। কারন এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি HTML and CSS এর সবকিছু জেনে নিতে পারবেন।
http://getbootstrap.com
এটা হলো একটা ফ্রেমওয়ার্ক। অত্যন্ত দারুন একটা ফ্রেমওয়ার্ক। যা আপনার ওয়েব ডিজাইন করার অভিজ্ঞতাই পরিবর্তন করে দিবে। অবশ্যই আপনাকে এটি শিখতে হবে।
কোথায় কাজ পাবেন
শুধু HTML and CSS শিখে খুব একটা কাজ পাওয়া যাবে না। কারন বর্তমানে সবাই ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে চায়। আবার অনেকে ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট একসাথে চায়। যাকে বলা হয় ফুলস্টাক। তাই আপনাকে ডায়নামিক করা শিখতে হবে। তা না হলে আপনি নিখুত কোডিং করতে পারবেন না। কারন HTML and CSS কোড করার সময় ডায়নামিকের কথা মাথায় রেখে কোড করতে হয়। তা না হলে ডায়নামিক করার সময় বেশ ঝামেলা পোহাতে হয়। আপনি কোথায় কোথায় কাজ খুজতে পারেন জেনে নিন।
http://upwork.com
http://freelancer.com
http://themeforest.net

কাজ পেতে হলো কি করনীয়
আপনার নিজের করা পূর্বের কাজের উদাহরন দেখাতে হবে আপনার ক্লায়েন্টকে। এটাকে পোর্টফোলিও(Portfolio) বলা হয়ে থাকে। আপনার পোর্টফোলিও যত বেশি প্রফেশনাল হবে আপনি তত তাড়াতাড়ি কাজ পাবেন। এক্ষেত্রে আপনি একটা ডোমেইন বা হোষ্টিং কিনে আপনার করা টেমপ্লেটগুলি আপলোড করে তার লিংক দিয়ে রাখতে পারেন। তাতে করে আপনার ক্লায়েন্ট আপনার দক্ষতা সম্পর্কে বেশ ভালো ধারনা পাবে।
ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে একটা পোর্টফোলিং ওয়েবসাইট বানানো খুবই সহজ।

ওয়েব ডিজাইনার ও ডেভেলপার এর মধ্যে পার্থক্য কি?

ওয়েব ডিজাইন

একজন Web Designer একটি সাইটে নানা রকম ডিজাইন করেন তিনি শুধু সাইট এর প্রদর্শন অববয় করেন । এখানে কোন অ্যাপ্লিকেশন থাকবে না । ওয়েব ডিজাইন শেখা অত্যন্ত সহজ আপনি ইচ্ছা করলে মাত্র ২-৩ মাসের মধ্যে একজন ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন । ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে (X)HTML এবং CSS এর পাশাপাশি Basic jQuery, JavaScript, PHP শিখতে পারেন । নানা রকম Framework যেমন, Bootstrap, Css Less Framework ইত্যাদি । এছাড়া, আপনাকে ফটোশপ এর কাজ জানতে হবে । কেননা, আপনি যদি একজন Web Designer হন তাহলে আপনাকে অবশ্যই সাইট এর ব্যানার, পোষ্টার এবং বিভিন্ন ধরণের বাটন তৈরি করতে হবে ।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট
একটি ওয়েবসাইটে কখন কখন বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়ে থাকে। যেমন রেজিষ্টেশন করা, ওর্ডার করা, নতুন তথ্য আপডেট করা। এই ধরনের কাজ গুল করার জন্য বিভিন্ন সার্ভার সাইড স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আপনি যদি নিজেকে একজন ওয়েব ডেভেলপার হিসাবে তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই নির্দিষ্ট ধাপে বিভিন্ন ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে হবে।
ওয়েব ডেভেলপ হচ্ছে ওয়েব সাইট এর জন্য অ্যাপ্লিকেশন। এখানে আপনাকে কোডিং এর মাধ্যমে নানা ধরণের অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে হবে । আপনি যদি ওয়েব ডেভেলপার হতে চান তাহলে ধৈর্য, পরিশ্রম ও মনোযোগের প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য । ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে অনেক সময় প্রয়োজন । ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে আপনাকে (X)HTML, CSS, jQuery, JavaScript, PHP, MySQL, Java, ইত্যাদি CMS সম্পর্কে ভালো জানতে হবে । এছাড়া Server related যেমনঃ ASP, .NET, AJAX, ইত্যাদি জানতে হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top